Free Internet In School: স্কুলে বিনামূল্যে ইন্টারনেট, বড় পদক্ষেপ সরকারের

শেয়ার করুন Free Internet In School: এবার সরকার দিচ্ছে বিনামূল্যে নেটওয়ার্ক পরিষেবা! তাও আবার স্কুল গুলিকে! লোকসভা নির্বাচনের আগে বড় সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকারের! শিক্ষানীতি বিষয়ে ...

Free Internet In School
শেষ আপডেট:

Free Internet In School: এবার সরকার দিচ্ছে বিনামূল্যে নেটওয়ার্ক পরিষেবা! তাও আবার স্কুল গুলিকে! লোকসভা নির্বাচনের আগে বড় সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকারের! শিক্ষানীতি বিষয়ে এই মুহূর্তে নানা পরিবর্তন এসেছে। পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গের ছাত্র ছাত্রীদের পড়াশোনার উন্নতি যাতে আরও বেশি করে হতে থাকে সেই কারণে একের পর এক নানা পদক্ষেপ নিয়ে আসছে রাজ্য সরকার। নানা সরকারী স্কলারশিপ, বিনামূল্যে মোবাইল অথবা ট্যাব, স্কুল ইউনিফর্ম, বই, খাতা ইত্যাদি নানা জিনিস পৌঁছে যাচ্ছে পড়ুয়াদের মধ্যে। এবার তার সঙ্গে যোগ হল বিনামূল্যে ইন্টারনেট পরিষেবা। সম্পূর্ণটা জেনে নিন আজকের প্রতিবেদন এর মাধ্যমে।

ইন্টারনেট পরিষেবার মাধ্যমে শিক্ষাব্যবস্থার প্রসার

করোনা মহামারীর সময় থেকেই সমগ্র দেশে পড়াশোনার হাল পুরোপুরি পরিবর্তন হয়েছে। তবে কঠিন পরিস্থিতিতে আমূল পরিবর্তনকে ভালোভাবে সামলেছে সরকার। অনলাইনে ইন্টারনেট পরিষেবার মাধ্যমে শিক্ষাব্যবস্থার প্রসার ঘটেছে বেশ কিছু জায়গায়। আর তারপর থেকেই ইন্টারনেট পরিষেবার ওপর খানিক নির্ভরশীল হয়ে উঠেছে শিক্ষা ব্যবস্থা। তাই বিভিন্ন স্কুলগুলিতে স্টুডেন্ট রেজিস্ট্রেশন সহ বিভিন্ন কাজগুলি ইন্টারনেটের মাধ‍্যমেই করা হয়ে থাকে। তবে পিছিয়ে যাচ্ছে প্রত্যন্ত গ্রামীণ এলাকার স্কুলগুলো। সেখানকার স্কুলগুলিতে শিক্ষা সংক্রান্ত বিভিন্ন কাজগুলির জন‍্য আধুনিক নেটওয়ার্ক পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তাই এবার শিক্ষা দফতর থেকে নয়া নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে।

আরও দরকারি: Paytm-র আরও চার ব্যাঙ্কের উপর কড়া নজর RBI-র, জরিমানা 2 লক্ষ টাকা! কোন বিপদে গ্রাহকেরা?

ইন্টারনেট পরিষেবার মাধ্যমে কী কী সুবিধা হবে পড়ুয়াদের (Benefits of Free Internet In School)?

নবান্ন সূত্রে খবর, রাজ‍্যজুড়ে বিভিন্ন স্কুলগুলিতে নেটওয়ার্কের যথাযথ পরিষেবার কাজ শুরু হবে আর কিছুদিন পর থেকেই। প্রথমদিকে একমাসের মধ‍্যে Webel নামক সরকারি ইন্টারনেট সংস্থাকে প্রাথমিকভাবে ১৪৫০০ টি স্কুলে নেটওয়ার্কের যোগাযোগের দায়িত্ব দেওয়া হবে। আর এই পরিষেবা পরবর্তী ৩৯ মাসের জন‍্য বৈধ থাকবে। প্রতিটি স্কুলে ১০০ এমবিপিএস স্পিডের ফ্রি ইন্টারনেট ধার্য করা হয়েছে। এর ফলে স্কুলে ছাত্রছাত্রী ভর্তি, স্কুল লিভিং সার্টিফিকেট, স্কুলে পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণিতে মোট কত জন পড়ুয়া ক্লাসে এসেছে ও তাদের মধ্যে কত জন মিড-ডে মিল খেল, বাংলার শিক্ষা পোর্টালে ছাত্রছাত্রীদের ফর্মেটিভ ও সামেটিভ পরীক্ষার নম্বর তোলা, রেজাল্ট তৈরি, ডিআইয়ের সঙ্গে প্রধান শিক্ষকদের ভার্চুয়াল বৈঠক-সহ বিভিন্ন কাজ করা অতি সহজেই সম্ভব হবে।

আরও পড়ুন:

জেনে রাখুন: মাধ্যমিকের মাঝেই জয়েন্ট নিয়ে বড় ঘোষণা! সময় পেরিয়ে যাওয়ার আগে জেনে নিন

  আমাদের হোয়াটস্যাপ চ্যানেল

Education News, Free Internet In School