Teacher Recruitment In West Bengal: পশ্চিমবঙ্গে নিয়োগের জট কাটতে চলেছে? নিয়োগপত্র হাতে পাবেন 11,765 জন প্রাথমিক শিক্ষক

শেয়ার করুন Teacher Recruitment: পশ্চিমবঙ্গে শিক্ষক নিয়োগের (Teacher Recruitment) জটিলতা অবশেষে কাটতে চলেছে। ১১,৭৬৫ শূন্যপদে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের জন্য সুপ্রিম কোর্টে নিয়োগ প্যানেল জমা দেওয়ার ...

Teacher Recruitment In West Bengal
শেষ আপডেট:

Teacher Recruitment: পশ্চিমবঙ্গে শিক্ষক নিয়োগের (Teacher Recruitment) জটিলতা অবশেষে কাটতে চলেছে। ১১,৭৬৫ শূন্যপদে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের জন্য সুপ্রিম কোর্টে নিয়োগ প্যানেল জমা দেওয়ার জন্য প্রস্তুত প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। পর্ষদের আশা, সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ প্যানেলে ছাড়পত্র দেবে। এরপরেই শূন্যপদে নিয়োগ পাবেন যোগ্য প্রার্থীরা।

রাজ্যের নিয়োগ দুর্নীতি মামলার কারণে ২০২২ সালের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া মাঝপথে থমকে যায়। তৎকালীন পর্ষদ সভাপতি মানিক ভট্টাচার্যের গ্রেফতারের পর নতুন নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয় (Teacher Recruitment)। এগারো হাজারের বেশি শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগের জন্য কাউন্সিলিং ও ইন্টারভিউ পর্যন্তও এগোয়। কিন্তু আইনি জটিলতার কারণে আবারও নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত হয়ে যায়।

কবে শুরু হবে (Teacher Recruitment )নিয়োগ প্রক্রিয়া?

প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ সূত্রে জানা গেছে, সুপ্রিম কোর্টে নিয়োগ প্যানেল জমা দেওয়ার পর তা পর্যালোচনা করা হবে। এরপরেই নিয়োগ প্রক্রিয়া এগিয়ে যাবে। পর্ষদের আশা, সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ প্যানেলে ছাড়পত্র দেবে।

আরও পড়ুন:

নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ হলে শীঘ্রই রাজ্যের স্কুলগুলিতে নতুন শিক্ষকেরা যোগ দেবেন। ২০২২ সালের টেট পাশ প্রার্থীরাও দ্রুত নিয়োগের দাবি তুলেছেন। পর্ষদ সভাপতি জানিয়েছেন, আগের নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ হলেই এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

আরও জেনে রাখুন: JENPAS UG 2024 পরীক্ষার তারিখ, রেজিস্ট্রেশন এবং প্রস্তুতি! বিশদে জানুন ক্লিক করে

নিয়োগের বিষয়ে চাকরিপ্রার্থী ও বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য

চাকরিপ্রার্থীদের বক্তব্য, বছর বছর টেটের ফলে উত্তীর্ণ প্রার্থীর সংখ্যা বাড়ছে। কিন্তু নিয়োগে আশার আলো দেখা যাচ্ছে কই! বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, এবার যে একটা ফয়সালা হতে চলেছে। তবে সবটাই নির্ভর করছে শীর্ষ আদালতের সিদ্ধান্তের উপর।

নিয়োগ প্রক্রিয়া দ্রুত শেষ করার জন্য প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদকে আরও উদ্যোগী হতে হবে। নিয়োগ দুর্নীতির অভিযোগের তদন্ত দ্রুত শেষ করে নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করা উচিত। তাহলেই চাকরিপ্রার্থীদের (Teacher Recruitment ) দীর্ঘদিনের অপেক্ষার অবসান হবে।

নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে চাকরিপ্রার্থীদের যে উদ্বেগ রয়েছে তা বোঝা যায়। তাই প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদকে তাদের আশ্বস্ত করা উচিত। নিয়োগ প্রক্রিয়া দ্রুত শেষ করার জন্য পরিকল্পনা গ্রহণ করা উচিত। আশা করা যায়, সুপ্রিম কোর্ট নিয়োগ প্যানেলে ছাড়পত্র দেবে। এরপরেই দীর্ঘদিনের জটিলতার অবসান ঘটিয়ে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

মনে রাখবেন: BDO কিভাবে হওয়া যায়? কোন পরীক্ষা দিতে হবে?

  আমাদের হোয়াটস্যাপ চ্যানেল

Teacher Recruitment, West Bengal Teacher Recruitment